Authentication Authorization Accounting

Authentication Authorization Accounting

AAA এর পূর্ণরূপ হলো: Authentication, Authorization & Accounting.
সাধানরত আমাদের নেটওয়ার্কে আমরা যে সকল ডিভাইস ব্যবহার করি ওই ডিভাইস গুলো অ্যাক্সেস করার জন্য আমরা প্রতিটি ডিভাইস এ username & Password ব্যাবহার করি অথবা User Create করে ডিভাইস গুলো অ্যাক্সেস করে থাকি। অনেক ক্ষেত্রে আমরা User Base ইন্টারনেট অ্যাক্সেস দিয়ে থাকি। এখন যদি এমন হয় কোন কোম্পানি তে 100 Switch আছে এবং 10 জন ইউজারকে আলাদা আলাদা Permission দিয়ে ডিভাইস access দেওয়ার প্রয়োজন তখন আপনি কি করবেন সবগুলো ডিভাইসে এক একটা করে username, password & permission সেট করবেন ? এটা ও না হয় করলেন , যদি কখনো এমন হয় আপনার কোন একটি ইউজারএর কিছু permission পরিবর্তন করার প্রয়জন তখন আপনাকে সব গুলো ডিভাইসে Admin অ্যাক্সেসে লগইন করে পরিবর্তন করতে হবে। এ সমস্যা থেকে সমাধানের জন্য, প্রতিটি ডিভাইসের লোকাল ডাটাবেজের পরিবর্তে একটি সেন্ট্রাল ডাটাবেজ তৈরি করা হয় । আর এই সেন্ট্রাল ডাটাবেজ অথেনটিকেশন সার্ভার হিসেবে AAA ব্যবহৃত হয়।

Authentication: আমরা যখন নেটওয়ার্কে অ্যাক্সেস করার জন্য username & password দিয়ে try করি তখন এই নামের user আছে কি না password সঠিক আছে কি না এটা check করে এবং ইউজার গুলো ডিভাইস অ্যাক্সেস এর জন্য request করছে নাকি Network সার্ভিস অ্যাক্সেস এর জন্য request করছে তা find out করে ইউজার গুলোকে লগইন করতে দিবে অথবা Deny করবে।

Authorization: ইউজার লগইন করার পর ইউজারের উপর কি কি permission আছে অর্থাৎ ইউজার কি কি করতে পারবে তা এই Authorization সার্ভিস এর মাধ্যমে নির্দিষ্ট করা হয়।

Accounting: এই সার্ভিস এর কাজ হল লগ রাখা, অর্থাৎ ইউজার কখন লগইন করল , কত সময় লগইন ছিল এবং ইউজার কি কি Command ব্যবহার করছে তার log সংরক্ষণ করে।

AAA, RADIUS & TACACS+ সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জানতে আমাদের কন্টাক্ট ফর্মটি পূরণ করে সাবমিট করুন।

By | 2021-04-02T19:24:32+06:00 November 26th, 2020|Security|0 Comments

About the Author:

Leave A Comment